বৃহস্পতিবার, ১৫ এপ্রিল ২০২১, ০৪:১৪ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
বড়লেখায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত আব্দুল বাছিতের পরিবারের পাশে নিসচা লালমনিরহাটের মিজানুর রহমানের মেডিকেলে পড়ার দায়িত্ব আতাউর রহমান প্রধান নড়াইলে ব্যবসায়ীকে গুলি অস্ত্রসহ যুবক গ্রেফতার আগৈলঝাড়ায় সর্বাত্মক কঠোর লকডাউন পালিত- ভ্রাম্যমাণ আদালতের জরিমানা। মানবিক বাংলাদেশ সাপাহার উপজেলা শাখার মাস্ক বিতরন। টাংগাইলের সফল নারী উদ্যোক্তা “পল্লবী পাল” তালামীযে ইসলামিয়ার কেন্দ্রীয় পরিষদের অভিষেক সম্পন্ন আগৈলঝাড়ায় সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার সুস্থতা কামনায় মিলাদ ও দোয়া অনুষ্ঠিত। নড়াইলে ব্যবসায়ীকে গুলির ঘটনায় জড়িত আরো এক আসামী গ্রেফতার বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয় (পঞ্চম শ্রেণি) লালমনিরহাটে অন লাইনে সাংবাদিক দের প্রশিক্ষণ কার্যক্রমের পরিচিতি সভা সাপাহার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ সেন্ট্রাল অক্সিজেন সরবরাহের উদ্বোধন টুঙ্গিপাড়ায় বাবুল শেখের মাস্ক বিতরণ। দেশবিরোধী অপশক্তির বিরুদ্ধে মাঠে আছেন- টিপু কলোড়া ইউনিয়ন আ.লীগের সভাপতি ও সম্পাদকক কে অবাঞ্ছিত ঘোষণা যৌতুকের দাবিতে মাগুরায় গৃহবধূকে পিটিয়ে হাত পা ভেঙ্গে দিয়ে হাসপাতালে ফেলে গেল স্বামী সাপাহারে আম গবেষণাগার ও সংরক্ষণাগার স্থাপনের দাবী আমচাষীদের শাহজাদপুরে কৃষকদের মাঝে কম্বাইন হারভেস্টার মেশিন বিতরণ মাহে রমজান উপলক্ষে জমিয়ত নেতা মাওলানা আফেন্দীর খাদ্য সামগ্রী বিতরণ আগৈলঝাড়ায় সাবেক শিক্ষক ও কবি অবিচল মিয়া মান্নান সরদারের কুলখানি অনুষ্ঠিত।
এটা একবিংশ শতাব্দী,উনবিংশ না… মেয়র প্রার্থী শীতল।

এটা একবিংশ শতাব্দী,উনবিংশ না… মেয়র প্রার্থী শীতল।

দৈনিক সময়ের বার্তা নিউজ ডেক্স:

২৮ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া পৌরসভা নির্বাচনে সবচেয়ে কম বয়সী মেয়র প্রার্থী হিসেবে হবিগঞ্জ জেলার শায়েস্তাগঞ্জ পৌরসভায় প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী সাবেক ছাত্রনেতা ইমদাদুল ইসলাম ইসলাম শীতল।

শিতল তার ব্যক্তিগত ফেসবুক একাউন্টে নির্বাচনকে সামনে রেখে পরিবর্তন ও জনসচেনতার লক্ষে এটা ‘একবিংশ শতাব্দী,উনবিংশ না…’ শিরনামে কিছু লেখা প্রকাশ করেন আর সেই লেখাগুলো হুবহৃ তুলেধরা হল।

একজন জনপ্রতিনিধি মানে জনগণের সেবক।জনগণ তাদের আমানত ভোট প্রদান করেন উনাদের সেবা করার জন্য।পাশাপাশি জনগণের টেক্সের টাকায় জনপ্রতিনিধিরা বেতন ভাতা ও অন্যান্য সুযোগ সুবিধা পেয়ে থাকেন।অর্থাৎ পাঁচ বছরের জন্য একজন জন- প্রতিনিধি তার নির্বাচনি এলাকার জনগণের অধিনস্ত কর্মচারীর মত কাজ করে জনগণের সেবা করতে বাধ্য।জনগণের সেবা সরকার প্রদত্ত টাকায় হয়ে থাকে,যে টাকা জনগণের টেক্স থেকেই সরকারের কোষাগারে জমা হয়।কাজেই নির্বাচিত হয়ে জনগণের সেবা করে যারা বুক ফুলিয়ে কৃত্বিত্তের দাবী করে তারা নিঃসন্দেহে বোকার স্বর্গে বসবাস করে।কেননা,জনগণ এর সেবা কোন প্রতিনিধি তার বাপ দাদার সম্পদ বিক্রি করে করেন না,জনগণের প্রাপ্য অধিকার তাদের টেক্সের টাকায় তাদের কাছে পৌছে দিতে জনপ্রতিনিধিরা বাধ্য।

আর একটা কথা,যারা নির্বাচনে কোটি টাকা ইনভেষ্ট করেন তারা কিন্তু পাশ করার পর সেই টাকা দূর্নীতি ব্যাতীত উত্তোলন করতে পারেন না।কেননা একজন মেয়রের ৫ বছরের বেতন সর্বমোট ২১,২০০০/= টাকা। কাজেই কোটি টাকা খরচ করা মানে পাশ করার পর জনগণের সেবা কতটা করবেন সেটা আপনার বিবেকের কাছে ছেড়ে দিলাম।আর যারা কোটি টাকা খরচ করে হেরে যাবেন তাদের মনোভাব জনগণের প্রতি কেমন হবে সেটাও আপনাদের বিবেকের কাছে প্রশ্ন করবেন।।দূর্নীতি মুক্ত পৌর পরিষদ গড়তে কালো টাকা পরিহার করা সময়ের দাবী,আশা করি পরিবর্তন হবে…।

খবরটি শেয়ার করুন




somoyerbarta-rh6

© স্বর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

All Right Reserve Daily Somoyer Barta © 2020. 

 
Design by Raytahost