বুধবার, ১৪ এপ্রিল ২০২১, ১১:১৮ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
নড়াইলে ব্যবসায়ীকে গুলি অস্ত্রসহ যুবক গ্রেফতার আগৈলঝাড়ায় সর্বাত্মক কঠোর লকডাউন পালিত- ভ্রাম্যমাণ আদালতের জরিমানা। মানবিক বাংলাদেশ সাপাহার উপজেলা শাখার মাস্ক বিতরন। টাংগাইলের সফল নারী উদ্যোক্তা “পল্লবী পাল” তালামীযে ইসলামিয়ার কেন্দ্রীয় পরিষদের অভিষেক সম্পন্ন আগৈলঝাড়ায় সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার সুস্থতা কামনায় মিলাদ ও দোয়া অনুষ্ঠিত। নড়াইলে ব্যবসায়ীকে গুলির ঘটনায় জড়িত আরো এক আসামী গ্রেফতার বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয় (পঞ্চম শ্রেণি) লালমনিরহাটে অন লাইনে সাংবাদিক দের প্রশিক্ষণ কার্যক্রমের পরিচিতি সভা সাপাহার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ সেন্ট্রাল অক্সিজেন সরবরাহের উদ্বোধন টুঙ্গিপাড়ায় বাবুল শেখের মাস্ক বিতরণ। দেশবিরোধী অপশক্তির বিরুদ্ধে মাঠে আছেন- টিপু কলোড়া ইউনিয়ন আ.লীগের সভাপতি ও সম্পাদকক কে অবাঞ্ছিত ঘোষণা যৌতুকের দাবিতে মাগুরায় গৃহবধূকে পিটিয়ে হাত পা ভেঙ্গে দিয়ে হাসপাতালে ফেলে গেল স্বামী সাপাহারে আম গবেষণাগার ও সংরক্ষণাগার স্থাপনের দাবী আমচাষীদের শাহজাদপুরে কৃষকদের মাঝে কম্বাইন হারভেস্টার মেশিন বিতরণ মাহে রমজান উপলক্ষে জমিয়ত নেতা মাওলানা আফেন্দীর খাদ্য সামগ্রী বিতরণ আগৈলঝাড়ায় সাবেক শিক্ষক ও কবি অবিচল মিয়া মান্নান সরদারের কুলখানি অনুষ্ঠিত। আগৈলঝাড়ায় দীর্ঘ নয় মাস পরও উদ্ধার হয়নি নিখোঁজ ফিলিপ। লালমনিরহাটে নাভিলা পরিবহন সরকারি আদেশ অমান্য করায় ২ টি বাস আটক করেছে ট্র্যাফিক পুলিশ
ধর্ষনের তথ্য সংগ্রহ করতে গিয়ে মামলায় ফেঁসেছে বাঘার দুই সাংবাদিক

ধর্ষনের তথ্য সংগ্রহ করতে গিয়ে মামলায় ফেঁসেছে বাঘার দুই সাংবাদিক

রাজশাহী জেলা প্রতিনিধিঃ

রাজশাহী ইনস্টিটিউট অব হেলফ টেকনোলজির (আইএইচটি) শিক্ষক আতিয়ার রহমান ওরফে মুকুলের বিরুদ্ধে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে বাঘা থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে ভুক্তভোগী ওই নারী।

৩১ ডিসেম্বর এ মামলা দায়ের করা হয়। এ ঘটনায় ফুসে উঠেছে আইএইসটি’র শিক্ষার্থীরা। অভিযুক্ত শিক্ষক আতিয়ার রহমানের অপসারনের দাবিতে শিক্ষার্থীরা মানববন্ধন করেছে। অভিযুক্ত আতিয়ার রহমান মুকুল নাটোর জেলার বাগাতিপাড়া থানার কলাবাড়িয়া গ্রামের আমজাদ ফকিরের ছেলে। বাঘা থানায় দায়ের করা মামলায় ওই নারী অভিযোগ করেন, তিন মাস আগে ঘটকের মাধ্যমে পারিবারিকভাবে তাদের বিয়ের কথা এগিয়ে যায়। এর কয়েকদিন পরে আতিয়ার রহমান মুকুল তার ভাবিকে সঙ্গে নিয়ে তাদের বাড়িতে আসেন। সেই সময় কৌশলে তার মোবাইল ফোন নম্বর নিয়ে যান। এরপর থেকে আতিয়ার রহমান মুকুল তার ফোন নম্বর থেকে ওই নারীর সঙ্গে যোগাযোগ করতে থাকে। বেশিরভাগ সময়ে ম্যাসেঞ্জার ও ইমুতে যোগাযোগ করেন অভিযুক্ত মুকুল।

এরপরে ৩০ ডিসেম্বর বিয়ের প্রলোভন দিয়ে ওই নারীকে কৌশলে লালপুর উপজেলার গোপালপুরে ডাকেন। অভিযোগে আরো জানা যায় যে, গোপালপুর থেকে মোটর সাইকেল যোগে বাঘায় ভুক্তোভুগি ওই নারীর এক দুরসম্পর্কের আত্মীয়ের বাড়িতে যান অভিযুক্ত শিক্ষক মুকুল ও ওই নারী। সেখানে গিয়ে মুকুল ওই নারীকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দেন ও ইচ্ছের বিরুদ্ধে ধর্ষণ করেন।

ঘটনাস্থলেই ওই নারী বিয়ের দাবি করেন। কিন্তু শিক্ষক মুকুল সময় চান। এক পর্যায়ে বিষয়টি জানাজানি হয়ে গেলে ওই নারীর আত্মীয়-স্বজনরা ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে ও ঘটনাস্থলেই শিক্ষক আতিয়ার রহমান মুকুলকে হাতেনাতে আটক করে। এক পর্যায়ে সেখানে খবর পেয়ে বাঘা রিপোর্টাস ক্লাবের কয়েকজন সাংবাদিক উপস্থিত হয়।সাংবাদিকরা মুকলের নাম ঠিকানা জানতে চাইলে তাদের উপরও ক্ষিপ্ত হয়। পরে স্থানীয় লোকজনের সহযোগিতায় পুলিশ থানায় নিয়ে আসে আইএইচটি’র ওই শিক্ষককে। পরের দিন ৩১ ডিসেম্বর বাঘা থানায় অভিযোগটি দায়ের করা হয় (মামলা নম্বর ৯)।

উক্ত ঘটনাকে কেন্দ্র করে গত বৃহষ্প্রতিবার(৩১ ডিসেম্বর) আতিয়ার রহমান মুকুলের ভাগিনা আলমগীর হোসেন বাদী হয়ে সাংবাদিক এম ইসলাম দিলদার(মানব জমিন) ও সাংবাদিক হাবিল উদ্দিন এর নামে চাঁদাবাজি মামলা দায়ের করেন, যার মামলা নং-১০। এদিকে এ ঘটনা প্রকাশ হওয়ায় আইএইচটি শিক্ষার্থীদের মাঝে ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে। এ ঘটনায় শিক্ষক আতিয়ার রহমান মুকুলের অপসরণের দাবিতে মঙ্গলবার(৫ জানুয়ারী)বেলা ১১টার দিকে আইএইচটির প্রধান ফটকে শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করেছেন। শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, ইনস্টিটিউট অব হেলফ টেকনোলজির (আইএইচটি) একটি স্বনামধন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। এখানে কোন খারাপ চরিত্রের শিক্ষক থাকতে পারে না।

দ্রুত ওই শিক্ষককে অপসারন ও বিচারের আওতায় নেয়ার দাবি জানান শিক্ষার্থীরা। আইএইচটির অধ্যক্ষ ডাঃ ফারহানা হক জানান,শিক্ষক মুকুল গত ১২ ডিসেম্বর থেকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে অনুপস্থিত। তাই তাকে শোকজ করা হয়েছে। তিনি কেনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে উপস্থিত হননি,তার জবাব দেবেন।

খবরটি শেয়ার করুন




somoyerbarta-rh6

© স্বর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

All Right Reserve Daily Somoyer Barta © 2020. 

 
Design by Raytahost