মঙ্গলবার, ১৮ মে ২০২১, ০৪:৪০ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
সিরাজদিখানে যুবলীগ নেতার ছত্র ছায়ায় তৈরী হচ্ছে সন্ত্রাস বাহিনী দক্ষিণবঙ্গ সাংবাদিক ইউনিট ফেসবুক গ্রুপের পক্ষ থেকে সবাইকে শুভেচ্ছা। পবিত্র ঈদ-উল ফিতর উপলক্ষে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য রিয়াদ বেনাপোলে গরু চুরি করে জবাইয়ের সময় জনতার হাতে ধরা। ভূরুঙ্গামারীতে অগ্রিম ঈদুল ফিতর উদযাপিত গুইমারা রিজিয়িনের সেনাবাহিনী কর্তৃক মানবিক সহায়তা প্রদান মুন্সিগঞ্জ জেলা যুবদলের পক্ষ থেকে মুন্সিগঞ্জ জেলা বাসিকে ঈদের শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন বেনাপোল সীমান্ত থেকে ৫ টি পিস্তল ৭ রাউন্ড গুলি ও ১ টি ম্যাগজিন উদ্ধার ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন মানিকগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ আল আমিন নাজমুল শাহজাদপুরে ৩০ শিক্ষার্থীর মাঝে পবিত্র কোরআন বিতরণ নিখোঁজ ব্যক্তির সন্ধান নিয়ে প্রতারক চক্রের প্রতারণা। মানিকগঞ্জে এক হাজার দুঃস্থ মানুষের মাঝে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ করেছেন মিজানুর রহমান। মানিকগঞ্জের ভাড়ারিয়া ইউনিয়নের নৌকা প্রতিকে চেয়ারম্যান পদ প্রত্যাশী মোঃ আতিকুল ইসলাম শ্যামলের ঈদ উল ফিতরের শুভেচ্ছা। মানিকগঞ্জের জাগীর ইউনিয়নের ওয়ার্ড সদস্য পদ প্রত্যাশী মোঃ ছায়েদুর রহমানের ঈদ উল ফিতরের শুভেচ্ছা। মানিকগঞ্জে “মানুষের পাশে” সংগঠনের উদ্দ্যোগে মানবিক সহায়তা হিসেবে গবাদি পশু, সেলাই মেশিন, ও নগদ অর্থ প্রদান। মানিকগঞ্জে যুবলীগের পক্ষথেকে হাজারের অধিক পরিবারের মাঝে ঈদ উপহার বিতরণ মানিকগঞ্জ পৌর যুবলীগ নেতা মোঃ মশিউর রহমান এর পক্ষ থেকে ঈদের শুভেচ্ছা মানিকগঞ্জ জেলা শ্রমিক লীগ নেতা নূর মোহাম্মদ খান এর পক্ষ থেকে ঈদের শুভেচ্ছা মানিকগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী শিহাব হোসেন এর পক্ষ থেকে ঈদের শুভেচ্ছা ঘিওরে ২ হাজার দুস্থ পরিবারের মাঝে ঈদ বস্ত্র বিতরণ করলেন – এমপি দুর্জয়
আসন্ন ইউ.পি নির্বাচনে মানিকগঞ্জের খলসি ইউনিয়নে নৌকা প্রতীকে চেয়ারম্যান পদ প্রত্যাশী ইঞ্জি. মোঃ মোস্তফা কামাল।

আসন্ন ইউ.পি নির্বাচনে মানিকগঞ্জের খলসি ইউনিয়নে নৌকা প্রতীকে চেয়ারম্যান পদ প্রত্যাশী ইঞ্জি. মোঃ মোস্তফা কামাল।

মোঃ আশরাফু্ল ইসলাম, বিশেষ প্রতিনিধিঃ

আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে ইউনিয়ন এলাকাবাসীর কাছ থেকে দোয়া,সমর্থন ও সার্বিক সহযোগিতা চাচ্ছেন মানিকগঞ্জের দৌলতপুর উপজেলাের ৫ নং খলসি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদ প্রত্যাশী ইঞ্জিনিয়ার মোঃ মোস্তফা কামাল।

উক্ত ইউনিয়নের রৌহা গ্রামের ইতালি প্রবাসী মোঃ আনোয়ার হোসেনের ছেলে মোস্তফা কামাল।পেশায় টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ার। কিছুদিন আগে বিদেশ থেকে ইঞ্জিনিয়ারিং শেষ করে দেশে ফেরার পর নিজ ইউনিয়নের দূরবস্থা দেখেই তিনি ইউনিয়নটিকে একটি আদর্শ ও ডিজিটাল ইউনিয়ন হিসেবে রুপান্তর করতে নানা উদ্দ্যোগ গ্রহন করেন।

সরজমিনে খোঁজ নিয়ে দেখা যায়,বিভিন্ন ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান,রাস্তা-ঘাট সহ সামাজিক উন্নয়ন মূলক কাজে নিজ উদ্যোগে ব্যক্তিগতভাবে সাহায্য সহযোগিতা করেছেন এই তরুণ জনপ্রতিনিধি।দরিদ্র ছেলে মেয়েদের পড়াশোনার প্রতি উদ্ভুদ্ধ করে নিজ অর্থায়নে বই-খাতা,কলম সহ প্রয়োজনীয় সকল ব্যবস্থা করেছেন।
এছাড়াও যুবকদের মাদক থেকে দূরে রাখতে খেলাধূলা ও শরীরচর্চার প্রতি যুবকদের উদ্ভুদ্ধ করে ব্যাট-বল,ফুটবল, বাস্কেটবল সহ অন্যান্য খেলাধুলার প্রযোজনীয় সামগ্রী দিয়ে পড়াশোনা ও খেলাধূলায় আকৃষ্ট করেছেন মোস্তফা কামাল।
তাই ছোট-বড়,যুবক-বৃদ্ধা সকলের কাছেই প্রিয় ব্যক্তি মোস্তফা কামাল।

আর তারই ধারাবাহিকতায় এলাকার জনগণের অনুপ্রেরণায়ই আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে চেয়ারম্যান পদ প্রত্যাশী তিনি।

খলসি ইউনিয়নের সাধারণ নাগরিকদের সাথে কথা বলে দেখা যায়, তরুন ও দক্ষ এবং মেধাবী প্রার্থী হিসেবে ইউনিয়ন বাসীর আস্থার কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছেন মোঃ মোস্তফা কামাল।

এলাকার জনগণ বলছেন জনগনের বিপদে-আপদে কিংবা যে কোন কাজে ডাকলেই তারা সবসময় পাশে পাচ্ছেন মোস্তফা কামালকে।
সাধারন নাগরিকরা বলছেন, মোস্তফা তরুণ মানুষ। ইঞ্জিনিয়ার হয়েও সে দেশে ফিরেই এলাকা ও এলাকার জনগনের উন্নয়নের জন্য অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছে।
তাই আমাদের ইউনিয়নের প্রায় সকল শ্রেণির মানুষই মোস্তফার পক্ষে আছে।

আর আমারা আশাবাদী আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে যদি চেয়ারম্যান পদ প্রার্থী হিসেবে মোস্তফা মনোনয়ন পায় তাহলে জনগণের বিপুল ভোটে নির্বাচিত হবে ইনশাআল্লাহ।

মাঠ পর্যায়ে এলাকাবাসীর সাথে আলোচনায় উঠে এসেছে, প্রায় অধিকাংশ লোকই মোস্তফা কামালকে নৌকা প্রতীকে চেয়ারম্যান পদ প্রার্থী হিসেবে দেখতে ও ভোট দিয়ে চেয়ারম্যান বানাতে ইচ্ছুক।

মোঃ মোস্তফা কামাল দৈনিক সময়ের বার্তা’কে বলেন,”আমি ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ার জন্য দেশের বাহিরে ছিলাম। দেশে ফিরে এলায় এসে এলাকার রাস্তা-ঘাট ও এলাকাবাসীর জীবনমানের দুরবস্থা দেখে মন থেকে খুব কষ্ট পাই।
তাই আমার সাধ্য অনুযায়ী সবসময় চেষ্টা করেছি ইউনিয়ন ও এলাকাবাসীর উন্নয়ন করার। বিশেষ করে রাস্তা খারাপ হওয়ার কারনে আমার ইউনিয়নের জনজীবনে দুর্ভোগটা বেশি। তাই নিজ উদ্যোগে কিছু রাস্তা – ঘাটের উন্নয়ন করেছি।
এলাকাবাসী যে কেউ যখনি আমাকে যে কারণে পাশে ডেকেছে আমি সাড়া দিয়ে সাধ্যানুযায়ী পাশে দাঁড়িয়েছি। আমি সব সময়ই আমার ইউনিয়নকে একটি ডিজিটাল ইউনিয়ন হিসেবে দেখতে চেয়েছি।তাই নিজের সাধ্যানুযায়ী চেষ্টা করেছি। আমি যদি নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন পাই, আর জনগণ যদি ভোট দিয়ে আমাকে নির্বাচিত করে তাহলে আমার ইউনিয়নকে ডিজিটাল ইউনিয়ন করার কাজ সহজ হয়ে যাবে। তখন জনগণের সহায়তায় নিজ অর্থায়নের পাশাপাশি সরকারী ভাবে ইউনিয়নের রাস্তা-ঘাট, মসজিদ – মাদ্রাসা, মন্দির ও বিভিন্ন ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান সহ সামাজিক উন্নয়ন মূলক কাজ করে এবং তার পাশাপাশি এলাকার বেকার যুবকদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করে এলাকাবাসীর জীবনমানের উন্নয়ন করে একটি আদর্শ ও ডিজিটাল ইউনিয়ন হিসেবে রুপান্তর করতে পারবো ইনশাআল্লাহ।”

খবরটি শেয়ার করুন




somoyerbarta-rh6

© স্বর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

All Right Reserve Daily Somoyer Barta © 2020. 

 
Design by Raytahost