রবিবার, ১১ এপ্রিল ২০২১, ০৩:৪৬ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
কালের বিবর্তনে হারিয়ে যাচ্ছে মাটির ঘর টাঙ্গাইল ৪৪০ পিস ইয়াবাসহ ১ নারী গ্রেফতার সিরাজদিখানে ব্যবসায়ীকে হত্যার হুমকির অভিযোগ লালমনিরহাটে দেশীয় অস্ত্রসহ ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া বাংলা আমার গৈলার প্রবীন শিক্ষক (অবঃ) কবি অবিচল মান্নান সরদারের ইন্তেকাল, দাফন সম্পন্ন। স্কাউটিংয়ে প্রথম ডক্টরেট ডিগ্রি অর্জন করলেন বাংলাদেশের ঈসা মোহাম্মদ তোমাতে আমি বড়লেখা নারী শিক্ষা কলেজের অধ্যক্ষ এ কে এম হেলাল উদ্দিন। পত্নীতলা উপজেলা কবি পরিষদ সভাপতি গুলজার, সাধারণ সম্পাদক ইখতিয়ার শাহজাদপুরে বাঁশের সাঁকোয় ২৫ গ্রামের ৫০ হাজার মানুষের ঝূঁকিপূর্ণ চলাচল। বেনাপোলে ভারতীয় গাঁজাসহ মাদক বিক্রেতা আটক অভাবের কারণেই কি মিজানুরের মেডিকেলে পড়ার সুযোগ হবে না? লালমনিরহা জেলায় চাকরি দেয়ার নামে প্রতারণার অভিযোগ ॥ ভুক্তভোগীকে হুমকি বেনাপোলে সাংবাদিকদের উপর সন্ত্রাসী বাহিনীর হামলা,থানায় অভিযোগ দায়ের আগৈলঝাড়ায় ঢিলেঢালা লকডাউন, নেই সামাজিক দূরত্ব, নেই স্বাস্থ্যবিধি। করোনা ভয়াবহ রূপ নিয়েছে। সন্ত্রাসী হামলার শিকার সাংবাদিক তৌহিদ কোভিড আক্রান্ত রোগীকে সহকারী পুলিশ কমিশনার(ট্রাফিক) এর প্লাজমা দান। মানিকগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগ সদস্য ত্রয়োর উদ্দোগ্যে মাস্ক বিতরন ।
রাজশাহী জেলা আ’লীগের নতুন কমিটি নিয়ে বাঘার এক ত্যাগি নেতার ফেসবুকে আবেগঘন প্রতিবাদী পোস্ট

রাজশাহী জেলা আ’লীগের নতুন কমিটি নিয়ে বাঘার এক ত্যাগি নেতার ফেসবুকে আবেগঘন প্রতিবাদী পোস্ট

রবিউল ইসলাম, রাজশাহীঃ

বাঙালি জাতির জনক, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হাতে গড়া প্রানপ্রিয় সংগঠন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ।
১৯৪৯ সালের ২৩ জুন সর্ববৃহৎ রাজনৈতিক দলটি আনুষ্ঠানিক ভাবে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। ২০২১ সালে এই বৃহত্তম দলটির ৭২ বছরে পা দিয়েছে। ৭২ বছরের এই রাজনৈতিক দলটি কোটি কোটি নেতা কর্মীর পরিশ্রম, ত্যাগ, রক্তের বিনিময়ে আজকের এই বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ। এখন আর শুধু রাজনৈতিক দল নেই, লাখো কোটি নেতাকর্মীর অনুভূতিতে পরিনত হয়েছে। দলের দূর্দিনের কথা মনে হলে, দলের ক্ষতির সম্ভাবনায় কাঁদে হাজারো মুজিব প্রেমী মানুষের হৃদয়।

বিশেষ করে দূর্দিনে যারা দলের পাশে ছিলনা, বা অন্য দলের সদস্য ছিলো এমন ব্যক্তি বা নেতারা (হাইব্রিড ও অনুপ্রবেশ কারি) যখন দলের কেন্দ্রীয়, জেলা, উপজেলা বা ইউনিয়ন কমিটিতে পদ-পদবি পাই বা দায়িত্ব পাই, যখন তৃণমূলের পরিক্ষিত নেতা-কর্মীদের অবমূল্যয়ন করা হয়। তখন ত্যাগী নেতা কর্মীদের আবেগ-ক্ষোভ বুকে চাপাকষ্ট ছাড়া কিছু করার থাকছে না। সাম্প্রতিক রাজশাহী জেলা আওয়ামীলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটির অধিকাংশ পদে হাইব্রিড ও অনুপ্রবেশ কারিরা জায়গা পাওয়ায় এবং একই ব্যক্তি একাধিক জেলার বিভিন্ন পদে দায়িত্বে থাকায় বুকচাপা কষ্ট নিয়ে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক জন নেতা এ কথা বলেন।

বাঘা উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক ছাত্রনেতা সামিউল আলম নয়ন সরকার তার নিজ ভেরিফাইড ফেসবুক আইডি (Sarkar Nayan) হতে একটি প্রতিবাদি পোস্ট করেছেন ৫ ফেব্রুয়ারি রাত্রি ৯টার দিকে। সেই পোস্টটি পাঠকদের জন্য হুবহু তুলে ধোরা হলো,
অনেক হয়েছে আর না,এবার প্রতিহত করতে হবে এদের! বঙ্গবন্ধুর প্রাণের সংগঠন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের যে সকল জেলা ও উপজেলা কমিটির অনুমোদন করা হয়েছে এবং অনুমোদিত জেলা কমিটির সকল নেতৃবৃন্দকে অভিনন্দন। জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান বীর মুক্তিযোদ্ধা, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ, ছাত্রলীগ, যুবলীগ সহ অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নির্যাতিত-নিপীড়িত জামাত-শিবির-বিএনপি জাতীয় পার্টি’র হামলা মামলার আসামি, বারবার কারাবরণকারী, পঙ্গুত্ব বরণ করেছেন এমন বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিকদের এই কমিটিতে মূল্যায়ন করার জন্য বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সভানেত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ও দলের সাধারণ সম্পাদক জনাব ওবায়দুল কাদের সাহেবের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি ও আল্লাহ রাব্বুল আলামীনের দরবারে শুকরিয়া আদায় করছি।

কিন্তু যে সকল তেলবাজ, গুটিবাজ , তদবিরবাজ , সুবিধাবাদী, খোলস আবৃত মৌসুমী পাখিদের জেলা আওয়ামীলীগের গুরুত্বপূর্ণ বেশকিছু পদে ও সদস্য হিসেবে রেখেছেন কোন যোগ্যতার ভিত্তিতে অনুরোধের সাথে জানতে চাই ? মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে অংশগ্রহণ না করেও মুক্তিযোদ্ধা সনদ ক্রয় করে মুক্তিযুদ্ধা সাজার মত! আর কতদিন এভাবে চালাবেন? জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলছি ঐসকল মানুষরূপী দের বলুন স্বউদ্যোগে প্রতিটি উপজেলা বা ইউনিয়নে ২থেকে ৪ হাজার মানুষ একত্রিত করে একটি প্রোগ্রাম করতে, তখন দেখা যাবে নেতা হওয়ার ভারত্ব কত টুকু, আর যদি না পারে তাহলে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ আয়োজিত বা উপজেলা আওয়ামীলীগ আয়োজিত কোন প্রোগ্রামে তাদের সঙ্গে নিয়ে মঞ্চে উঠবেন না। মনে রাখবেন শুধুই তাদের জন্য আমাদের লড়াই শুরু হবে এখন থেকে ত্যাগী নির্যাতিত নিপীড়িত সুবিধাবঞ্চিত আওয়ামীলীগারদের দুঃখ কষ্ট মেনে নেব না।

মৌসুমী পাখির মত এসে কিছু প্রোগ্রামে নেতাদের সঙ্গে সেলফি তুলে নেতা বনে যাচ্ছেন আর সহ্য করা যায় না এর প্রতিকার করতে চাই। দিনের পর দিন মাসের পর মাস বছরের পর বছর শোবার ঘর একটু বিছানা একটি বালিশ পাইনিমাঠে-ঘাটে রেলস্টেশনে মাছ বাজারে ঘুমোতে হয়েছে, না খেয়ে থাকতে হয়েছে অনেক শুভাকাঙ্ক্ষী কিছু ভালোবাসার মানুষ পোটলার মধ্যে খাবার নিয়ে মাঠে ঘাটে দিয়ে আসত। আমাদের সহযোদ্ধাদের মধ্যে অনেককেই মাসের ২৪/২৫ টা দিন আদালত চত্বরে কাটাতে হতো একের পর এক ডেট পড়তে থাকে হাজিরার টাকার কথা তো বাদই দিলাম, কতোটা যন্ত্রণার কষ্টের অনুভব করেছেন কখনও?আসলে কি আপনাদের শরীরে মানুষের চামড়া? বাবা নেতা, মা নেতা, ছেলে ও মেয়েকেও বানাচ্ছেন নেতা, ভাইকে বানাচ্ছেন নেতা, ভাগিনাকে, ভাতিজাকে বানাচ্ছেন নেতা। দলের জন্য যারা দুঃসময়ে নির্যাতন-নিপীড়ন সহ্য করেছে এখনো তাদেরকে আপনাদের পেছনে পেছনে কুকুরের মত করে ঘুরাচ্ছেন। দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতৃবৃন্দ আপনারা বহাল তবিয়তে আছেন আশেপাশে চাটুকারদের অভাব নেই মন মাতানো পারফিউমের গন্ধ, কেউবা মুজিব কোট, কেউবা স্যুট প্যান্ট তোষামোদকারীদের অভাব নেই। সফরসঙ্গী হিসেবে নানা ধরনের চাটুকার উড়োজাহাজের টিকিট ভালো হোটেলে রাত্রিযাপন নামি দামি খাবার, দামি দামি উপহার সামগ্রী আপনাদেরকে ভুলিয়ে রেখেছে দুঃসময়ের সে সকল কর্মীদের। দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতারা আপনারা একটিবার ভেবে দেখেন না কেন দুঃসময়ের ঐ সকল কর্মীদের কাছে বারবার ঢাকায় এসে দেখা করা আপনাদের মনোরঞ্জন করানো আপনাদের সফরসঙ্গী হওয়া আপনাদের দামী দামী গিফট দেওয়ার মত অর্থ ওদের নেই। আল্লাহ রাব্বুল আলামীন আপনাদেরকে মঙ্গল করবেন। একটু মনে রাখবেন এখন থেকে আমাদের প্রতিটি ইউনিটে প্রতিবাদ ও প্রতিরোধ গড়ে তোলা হবে। সবাই ভাল থাকবেন সবার সুস্বাস্থ্য কামনা করছি।
” জয় বাংলা , জয় বঙ্গবন্ধু”

খবরটি শেয়ার করুন




somoyerbarta-rh6

© স্বর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

All Right Reserve Daily Somoyer Barta © 2020. 

 
Design by Raytahost