রবিবার, ১১ এপ্রিল ২০২১, ০৪:৪৭ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
কালের বিবর্তনে হারিয়ে যাচ্ছে মাটির ঘর টাঙ্গাইল ৪৪০ পিস ইয়াবাসহ ১ নারী গ্রেফতার সিরাজদিখানে ব্যবসায়ীকে হত্যার হুমকির অভিযোগ লালমনিরহাটে দেশীয় অস্ত্রসহ ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া বাংলা আমার গৈলার প্রবীন শিক্ষক (অবঃ) কবি অবিচল মান্নান সরদারের ইন্তেকাল, দাফন সম্পন্ন। স্কাউটিংয়ে প্রথম ডক্টরেট ডিগ্রি অর্জন করলেন বাংলাদেশের ঈসা মোহাম্মদ তোমাতে আমি বড়লেখা নারী শিক্ষা কলেজের অধ্যক্ষ এ কে এম হেলাল উদ্দিন। পত্নীতলা উপজেলা কবি পরিষদ সভাপতি গুলজার, সাধারণ সম্পাদক ইখতিয়ার শাহজাদপুরে বাঁশের সাঁকোয় ২৫ গ্রামের ৫০ হাজার মানুষের ঝূঁকিপূর্ণ চলাচল। বেনাপোলে ভারতীয় গাঁজাসহ মাদক বিক্রেতা আটক অভাবের কারণেই কি মিজানুরের মেডিকেলে পড়ার সুযোগ হবে না? লালমনিরহা জেলায় চাকরি দেয়ার নামে প্রতারণার অভিযোগ ॥ ভুক্তভোগীকে হুমকি বেনাপোলে সাংবাদিকদের উপর সন্ত্রাসী বাহিনীর হামলা,থানায় অভিযোগ দায়ের আগৈলঝাড়ায় ঢিলেঢালা লকডাউন, নেই সামাজিক দূরত্ব, নেই স্বাস্থ্যবিধি। করোনা ভয়াবহ রূপ নিয়েছে। সন্ত্রাসী হামলার শিকার সাংবাদিক তৌহিদ কোভিড আক্রান্ত রোগীকে সহকারী পুলিশ কমিশনার(ট্রাফিক) এর প্লাজমা দান। মানিকগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগ সদস্য ত্রয়োর উদ্দোগ্যে মাস্ক বিতরন ।
পত্নীতলায় বাতাসে মৌ-মৌ সুবাস বইছে আমের মুকুলে

পত্নীতলায় বাতাসে মৌ-মৌ সুবাস বইছে আমের মুকুলে

সাকিব হোসেন, পত্নীতলা ( নওগাঁ ) প্রতিনিধিঃ

নওগাঁর পত্নীতলা উপজেলায় চলতি মৌসুমে গাছে গাছে আমের মুকুল যেন বাংলার প্রকৃতিকে অপরুপ করে তুলেছে। আমের মুকুল দেখতে যেমন-তেমন, এর মৌ মৌ গন্ধ পাগল করে সকল বাঙালিকেই।নতুন ফুলে-ফুলে ভরে ওঠে গাছের শাখা,এদিকে অধিক ফলনের আগাম স্বপ্ন দেখছে আম চাষীগণ ।

মাঘের সন্ন্যাসী হয়ে শীত বিদায় নিয়েছে প্রকৃতি থেকে। ফালগুনের প্রথম দিনেই বর্ণাঢ্য আয়োজনে বরণের মধ্য দিয়ে বাংলা পঞ্জিকায় সদ্যই অভিষিক্ত ঋতুরাজ বসন্ত। হলুদ, বাসন্তী আর গাঢ় লালচে ফুলে ফুলে সেজেছে গ্রাম বাঙলা। আগুনঝরা ফাগুনের আবাহনে ফুটেছে শিমুল-পলাশ। উপজেলার গ্রামের মেঠোপথে কখনও কখনও দূর সীমানা থেকে কানে ভেসে আসছে কোকিলের কুহু কুহু কলতান।
এরই মধ্যে বসন্তের আগুনরাঙা গাঁদা ফুলের সঙ্গে সৌরভ ছড়াচ্ছে আমের মুকুলও। আমের মুকুলের মিষ্টি ঘ্রাণে এখনই মৌ মৌ করতে শুরু করেছে পত্নীতলার চারিদিক। মুকুলের সেই সুমিষ্ট সুবাস আন্দোলিত করে তুলছে মানুষের মন। কমিয়েছে মানুষের দুঃখ কষ্টের ভার।


উপজেলার বিভিন্ন গ্রাম ঘুরে দেখা গেছে, কিছু কিছু বাড়ির উঠানে আম গাছে শোভা পাচ্ছে মুকুল। বাতাসে মুকুলের সুবাসিত পাগল করা ঘ্রাণ। গাছের আমপাতার সবুজ বিছানায় মুকুলের হলুদের সমাহার যেন ফুলশয্যা সাজিয়ে নিজের স্বপ্ন ভাগাভাগি করছে বসন্তের কোকিলের সাথে । সেই সঙ্গে বিদায় নিয়েছে শীতকাল। তবে আবহাওয়ার ওপর আমের ফলন নির্ভর করে।আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে এ বছর আমের ফলন ভালো হবে বলে মনে করছেন আম চাষিরা। শিহাড়া ইউনিয়নের বাগান মালিকরা জানান, প্রতিটি বাগানে প্রায় ৮০-৯০% আম মুকুল দেখার পর তারা অনেক খুশি। এই মুকুল টিকে থাকলে এবার আমের বাম্পার ফলন পাওয়া যাবে। ঘন কুয়াশা থাকলে মুকুল পচে নষ্ট হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে যা আর এখন নেই। নিরমইল ইউনিয়নের আম চাষি, সুকুমার জানান উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের পরামর্শ অনুযায়ী বালাইনাশক ব্যাবহার করছেন তিনি। আগামীর সম্ভাবনায় স্বপ্ন নিয়ে বাগান পরিচর্যার কাজে ব্যাস্ত সময় পার করছেন উপজেলার আমচাষীগণ। কোন প্রকার প্রাকৃতিক দুর্যোগ না হলে এ বছরেও আমের বাম্পার ফলনের আশা করছেন এলাকার আমচাষীরা।


নিউজ সংগ্রহের সময় দেখা যায়, শিহাড়া ইউনিয়নের উপসহকারী কৃষি অফিসার মোঃ আকবর হোসেন আম চাষীদের বিভিন্ন পরামর্শ প্রদান করেন।

উপজেলার কৃষি কর্মকর্তা প্রকাশ চন্দ্র সরকার জানান , এ বছর উপজেলার শিহাড়া, দিবর, নিরমইল ইউনিয়ন সহ মোট ৩৫৫০ হেক্টর জমিতে বিভিন্ন প্রকার আম চাষ করা হচ্ছে । গত মৌসুমে আমের বাজারদর ভালো থাকায় লাভবান হয়েছিলো এলাকার আমচাষীরা। আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে এবারো লাভবান হবেন আম চাষিরা ।

খবরটি শেয়ার করুন




somoyerbarta-rh6

© স্বর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

All Right Reserve Daily Somoyer Barta © 2020. 

 
Design by Raytahost