শুক্রবার, ১৪ মে ২০২১, ১২:৩৩ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
পবিত্র ঈদ-উল ফিতর উপলক্ষে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য রিয়াদ বেনাপোলে গরু চুরি করে জবাইয়ের সময় জনতার হাতে ধরা। ভূরুঙ্গামারীতে অগ্রিম ঈদুল ফিতর উদযাপিত গুইমারা রিজিয়িনের সেনাবাহিনী কর্তৃক মানবিক সহায়তা প্রদান মুন্সিগঞ্জ জেলা যুবদলের পক্ষ থেকে মুন্সিগঞ্জ জেলা বাসিকে ঈদের শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন বেনাপোল সীমান্ত থেকে ৫ টি পিস্তল ৭ রাউন্ড গুলি ও ১ টি ম্যাগজিন উদ্ধার ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন মানিকগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ আল আমিন নাজমুল শাহজাদপুরে ৩০ শিক্ষার্থীর মাঝে পবিত্র কোরআন বিতরণ নিখোঁজ ব্যক্তির সন্ধান নিয়ে প্রতারক চক্রের প্রতারণা। মানিকগঞ্জে এক হাজার দুঃস্থ মানুষের মাঝে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ করেছেন মিজানুর রহমান। মানিকগঞ্জের ভাড়ারিয়া ইউনিয়নের নৌকা প্রতিকে চেয়ারম্যান পদ প্রত্যাশী মোঃ আতিকুল ইসলাম শ্যামলের ঈদ উল ফিতরের শুভেচ্ছা। মানিকগঞ্জের জাগীর ইউনিয়নের ওয়ার্ড সদস্য পদ প্রত্যাশী মোঃ ছায়েদুর রহমানের ঈদ উল ফিতরের শুভেচ্ছা। মানিকগঞ্জে “মানুষের পাশে” সংগঠনের উদ্দ্যোগে মানবিক সহায়তা হিসেবে গবাদি পশু, সেলাই মেশিন, ও নগদ অর্থ প্রদান। মানিকগঞ্জে যুবলীগের পক্ষথেকে হাজারের অধিক পরিবারের মাঝে ঈদ উপহার বিতরণ মানিকগঞ্জ পৌর যুবলীগ নেতা মোঃ মশিউর রহমান এর পক্ষ থেকে ঈদের শুভেচ্ছা মানিকগঞ্জ জেলা শ্রমিক লীগ নেতা নূর মোহাম্মদ খান এর পক্ষ থেকে ঈদের শুভেচ্ছা মানিকগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী শিহাব হোসেন এর পক্ষ থেকে ঈদের শুভেচ্ছা ঘিওরে ২ হাজার দুস্থ পরিবারের মাঝে ঈদ বস্ত্র বিতরণ করলেন – এমপি দুর্জয় ঈদ উপলক্ষে মানিকগঞ্জ সরকারি দেবেন্দ্র কলেজ এইচ.এস.সি- ২০২১ ব্যাচ শিক্ষার্থীদের উদ্যোগে ঈদ সামগ্রী বিতরণ। লালমনিরহাটে আদিতমারীতে অভ্যন্তরিন বোরো ধান ও চাল সংগ্রহের উদ্বোধন
টাংগাইলের সফল নারী উদ্যোক্তা “পল্লবী পাল”

টাংগাইলের সফল নারী উদ্যোক্তা “পল্লবী পাল”

রবিন তালুকদার, টাঙ্গাইল প্রতিনিধি

“চিহ্ন” একটি সফল অনলাইন কেনাকাটার বিশ্বস্ত নাম। যার প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক পল্লবী পাল। টাংগাইলের মাওলানা ভাসানীর জন্মস্থান সন্তোষ গ্রামেই পালপাড়া পল্লবীর জন্ম। প্রত্যেকটি অর্জনের পিছনে লুকিয়ে থাকে সংগ্রাম করে যাওয়ার মতো তিক্ত একটি গল্প যা কিনা জীবনে বিনিময় সুখের অর্জন হিসেবে ফেরত আসে। তেমনি একজন সফল নারী উদ্যোক্তা টাংগাইলের মেয়ে “পল্লবী পাল” মেয়েটি মাত্র দুবছরের অক্লান্ত পরিশ্রমের বিনিময়ে নিজেকে একজন সফল উদ্যোক্তা হিসেবে সমাজের কাছে তুলে ধরেছেন তার শৈল্পিক পরিচিতি।

পল্লবী ২০১৮ সাল থেকে পড়াশোনার পাশাপাশি চালিয়ে যান অনলাইন ব্যবসা। তবে থেমে থাকেননি তিনি। দুর্গম পথ এবং ব্যার্থতার গ্লানি উপেক্ষা করে আজ সাফল্যর দ্বারপ্রান্তে ”পল্লবী পাল”। হাটি হাটি পা পা করে তার অনলাইন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানটিকে সাথে নিয়ে তিনি হয়ে উঠেন টাংগাইলের অন্যদের তুলনায় অনেক এগিয়ে একজন সফল নারী উদ্যোক্তা।

বর্তমানে পল্লবী কাজ করে যাচ্ছে দেশীয় পণ্য নিয়ে। তার মধ্যে রয়েছে নিজের হাতে তৈরি করা বিভিন্ন অর্গানিক খাবার তার মধ্যে খাটিঁ গাওয়া ঘি, মিক্সড ড্রাই ফ্রুটস অন্যতম। হাতে বানানো আচারের মধ্যে রয়েছে রসুন, বরই, আম, তেতুল এবং মিক্সড আচার। খাঁটি ঘি তে ভাজা সেমাই, মটর ও মাশের ডালের বড়ি। আবার হাতে তৈরি করা ফিউশন । আবার পাট দিয়ে তৈরি করছেন বিভিন্ন ধরনের গহনা। এসব গহনার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে, কানের দুল, ব্যাগ, হাতে রাখার ছোট ব্যাগ, গলার মালা ইত্যাদি অন্যতম। হ্যান্ড পেইন্টেস এর মধ্যে রয়েছে বিভিন্ন রং- এর কারুকাজর্পূণ শাড়ি ও ব্লাউজ।

দৈনিক সময়ের বার্তার প্রতিবেদক এর কাছে পল্লবী পাল একান্ত সাক্ষাতকারে বলেন, বি.এস সি. শেষ করেছি ২০১৯ সালে কম্পিউটার সাইন্স এবং ইঞ্জিনিয়ারিং নিয়ে বাংলাদেশ আর্মি ইউনির্ভাসিটি অফ ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড টেকনোলজি থেকে। নিজের পরিচয় গড়ে তোলার খুব ইচ্ছে এবং স্বপ্ন থেকেই মূলত উদ্যোক্তা হয়ে উঠা। আমি আমার ফ্রেন্ডদের বিশেষ দিন গুলোতে তাদের বিভিন্ন ধরনের কাগজের তৈরি ক্রাফটিং জিনিস উপহার দিতাম। আমার এই কাজ গুলো দেখে ওরাই আমাকে প্রথমে উৎসাহ দেয়। ২৫ অক্টোবর ২০১৮ তখন থেকেই আমার উদ্যোক্তা হয়ে পথ চলা শুরু করা। উদ্যোক্তাদের কাছে প্রত্যেক দিনই এক একটা চ্যালেঞ্জ। সেই জন্য আমি সব সময় চেষ্টা করি ঠান্ডা মাথায় সব সমস্যার মোকাবেলা করার। আর এই চ্যালেঞ্জ গুলো আরও ভালোভাবে আমি মোকাবেলা করতে পারি এজন্য আমাকে প্রতিনিয়ত প্রেরণা যুগিয়েছেন আমার মা,বাবা ও ছোট বোন। আমার ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা আমি আমার দেশের প্রায় বিলুপ্ত হয়ে যাওয়া পণ্যকে নিজের দেশের পাশাপাশি বিভিন্ন দেশের কাছে তুলে ধরবো। একজন উদ্যোক্তা তখনই সফল যখন তার কাস্টমার ভালো ফিডব্যাক দেয়।

এইদিক থেকে আমি সফল কারণ আমার প্রধান উদ্দেশ্যই থাকে কাস্টমারের সন্তুষ্টি। আর ভগবানের কৃপায় আমার সব কাস্টমারই আমার সার্ভিস এবং পণ্যে তারা সন্তুষ্ট। এটায় আমার সফলতা বলে আমি মনে করি। পুরো বিশ্ব যখন করোনার ভয়াবহ পরিস্থিতিতে অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ তখন আমাদের মত উদ্যোক্তারা অনলাইন বিজনেস বা ই-কমার্স এর মাধ্যমে দেশের অর্থনৈতিক বাজার সচল রেখেছে এবং সবার প্রয়োজন মিটাতে সাহায্য করেছে। তাই বলবো কোভিড-১৯ এ ই-কমার্স। আর অনলাইন কেনাকাটায় যতটা সম্ভব সর্তকতা অবলম্বন করবেন। ক্রেতাদের উদ্দেশ্যে পল্লবী বলেন, কে আসল উদ্যোক্তা আর কে নকল উদ্যোক্তা সেটা আপনাদেরই বেছে নিতে হবে। নকল উদ্যোক্তাদের কাছে থেকে পণ্য অর্ডার করে বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়ার আগে যাচাই বাছাই করে অনলাইন থেকে কেনাকাটা করুন। আসুন দেশের এই পরিস্থিতিতে বাইরে না গিয়ে নিজের প্রয়োজনীয় পণ্য অনলাইন থেকে নিয়ে পরিবারের সুরক্ষা নিশ্চিত করি।

পরিশেষে বলেন, করোনা মহামারিতে স্বান্থ্য বিধি মেনে নিজে সর্তক হোন, আর অন্যদেরও সতর্ক করুন থাকার অনুরোধ করেন।

খবরটি শেয়ার করুন




somoyerbarta-rh6

© স্বর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

All Right Reserve Daily Somoyer Barta © 2020. 

 
Design by Raytahost